শিল্পসংস্কৃতি-৩ - পৃষ্ঠা নং-১৪

খোকন মাহমুদ

আধুনিক কবিতার জগতে খোকন মাহমুদ পরিচিত নাম। ইতিমধ্যে তার কবিতার গ্রন্থের সংখ্যা সাত। কবিতার ভাষা, শব্দের নব সংযোজন কবির প্রথম কাজ। কবির দ্বিতীয় কাজ সামাজিক চেতনা সৃষ্টি। খোকন মাহমুদের কবিতার মধ্যে উভয়ের সমন্বয় ঘটেছে। কাব্য সৃষ্টির ক্ষেত্রে খোকন একজন সার্থক কবি। তার কবতার মধ্যে ছন্দগতির অপূর্ব স্বাদ আছে। যে কারণে তার কবিতা সঠিক অর্থেই আধুনিক। কবিকে যখন বায়োস্কোপের মাধ্যম সামাজিক অনাচারের বিরুদ্ধে তির্যক কোপ মারতে দেখি তখন তার কলমকে কুড়াল বলে মনে হয়। আবার কবিতার পাখা মেলে যখন তাকে অতীত, বর্তমান ভবিষ্যৎ রোমন্থন করতে দেখি তখন তাঁকে ‘কবিতায় দ্রষ্টা’ বলে মনে হয়। তার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থসমূহ হল-------‘ডেকোছো, পালক?’, ‘দূরাগত ধ্বনি’, ‘চলেছি সাঁকোর ওপাড়’, ‘বায়োস্কোপ (ছড়া)’, ‘এবার ভ্রমণে যাব’ ‘কবিতার শহর’ কাব্যোপন্যাস -------রৌদ্রো মেঘের ডানা। জন্ম-২২ জুন ১৯৬৯ ভাজনচালা।

অ্যাডভোকেট লিয়াকত আলী

অ্যাডভোকেট লিয়াকত আলী বাবু রাজবাড়ির সাহিত্য অঙ্গনে একজন রম্য লেখক হিসেবে বিশেষ পরিচিত। তিনি কবিতা ও কলাম লেখক হিসেবে দীর্ঘদিন যাবৎ ‘সাপ্তাহিক অনুসন্ধান’, ‘দৈনিক সহজ কথা’, ‘সাপ্তাহিক সাহসী সময়’ এবং ‘দৈনিক মাতৃকণ্ঠে’ নিয়মিত রম্য রচনা, কবিতা ও কলাম লিখে চলেছেন। সদ্য প্রতিষ্ঠিত কালুখালি উপজেলাধীন রতনদিয়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম নাজির আলী ও মাতার নাম মছিরন নেছা।

 

নেহাল আহমেদ

কবিতার সাথে গল্প, তার সাথে নানা প্রহসন নেহালের সাহিত্যচর্চা। জীবনের টানাপোড়েন, সংঘাত, জীবনারচরণর মধ্যে সাহিত্য চর্চা তাঁর নেশা। অন্তর্দৃষ্টি মানুষ আর ছোট্রশহর রাজবাড়ির কর্মকোলাহলের গতিশীল জীবন। স্বাধীনতা যুদ্ধ নেহাল দেখেনি কিন্তু স্বাধীনতার স্বাদ কতদূর যায় তা জানতে চায়। জন্ম ১৫ আগস্ট ১৯৭৩। প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ ‘অসম্পূর্ণ দুপুর’।

 

 

মনিরুজ্জামান মিন্টু

‘শব্দের পাখায় শব্দ ওড়ে’ এমনি ভাব ব্যাঞ্জনায় সৃষ্ট মনিরুজ্জামান মিন্টুর কবিতা। জল আর মেঘের অটুট বন্ধন কে কবে ছিন্ন করতে পারে? এমন বোধে কবির উজ্জীবন। ভাব আর ভাষার লালিত্যে কবি মোহনীয় জগৎ সৃষ্টিতে পারঙ্গম। ইতি মধ্যে কাব্যসাধানায় পুরস্কৃত। প্রকাশিত ‘পৌষের পত্রে মুখরিত গান’, ‘জলমেঘ’। জন্ম ৬৮ জুলাই ১৯৭৯ রাজবাড়িতে।

Additional information