চিত্র শিল্প - পৃষ্ঠা নং-৬

এ পর্দা দুলে উঠুক

অশরীরি অন্ধকার বাতাস

বলে উঠুক চল এখনি চল

আমি যেন উঠে বসি

বিবেক কাফনে মোড়া

লাশের মতো কবরের মাঝে

দু’পা বাড়ালে যেন

অনন্ত বাতাস অজস্র

[ স্ত্রী ও মেয়েদের ফ্রান্সে পাঠানোর পর তনয়াদের প্রতি তার আবেগের মূর্ততা]

সান্ধ্য আইন

সুনয়নী, তোমার চোখের তাক করা ঐ মেশিনগানে। শ্যামল দেহের শহর জুড়ে অলিগলির মোড়ে মোড়ে। সদরঘাটের উষ্ণ ঠোঁটে ভাববো আমি সান্ধ্য আইন। নিজেই আমি মারমুখো আজ সেই জনতা। থোরাই তোমার নিষিদ্ধতা।

যুদ্ধ প্রেম

যুদ্ধ মানে ভালবাসার নীল নকশার রণাঙ্গন

যুদ্ধ মানে মারমুখী এ্যাম্বুশ আর তল্লাসী

যুদ্ধ মানে বন্ধ করে গ্রেনেড ছোড়া

তুমি আমি অনেকক্ষণ

যুদ্ধ মানে মান অভিমান গরম ঠোঁটে সারেন্ডার

যুদ্ধ মানে চিরকালের সুখ দুঃখের কারাগার

সময় নেই

বন্ধুবর্গ উৎসর্গিত তোমাদের সবুজ

ময়দানে ছড়ানো সাদা গোলাপ

বিধবা সুন্দর সমাজের সমাদর

কিছু অপ্রসঙ্গিক সংলাপের

নিচে লাল সুতোগুলো অন্ধকারে

গাঢ় করে রাখো।

Additional information