সঙ্গীত ও নৃত্য - পৃষ্ঠা নং-৬

পুলক চৌধুরী

গলায় সুর বের না হলেও তাকে যেন সব অনুষ্ঠানেই যোগ দিতে হবে। আমি তাকে দেখতাম কখনো গাইছে গান, কখনো সঙ্গত করছে আবার কখনো গীটার হাতে স্টেজে। সুর থাকতো শুদ্ধ আর তাল লয় ছিল পাকা। পুলক চৌধুরী সঙ্গীত জগতে অনেক উপরে স্থান করে নিয়েছেন। তিনি বাংলাদেশ বেতারের স্টাফ আর্টিস্ট এবং চাকরিসূত্রে বাংলাদেশ বেতারের সাথে দীর্ঘ ৩০ বৎসর সংশ্লিষ্ট হয়ে আছেন। পুলক চৌধুরীর বাড়ি রাজবাড়ি জেলার বরাটের কাঁচরন্দ গ্রামে।

 

মোঃ খাতের আলী ফকির

রাজবাড়ি জেলার বালিয়াকান্দি থানায় নাড়ুয়া ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামে ১৯০০ শতকে জন্মগ্রহণ করেন মোঃ খাতের আলী ফকির। তিনি সামরিকবাহিনীতে যোগ দিয়ে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে (১৯৩৯) অংশগ্রহণ করেন। অতঃপর বৃটিশ সরকারের ভাতা নিয়ে তিনি অবসর গ্রহণ করেন। মূলত তিনি ছিলেন গায়ক ও গান রচয়িতা। বেশিরভাগ সময় তিনি মুর্শিদী, মারফতী গান রচনা করে তা নিজেই গাইতেন। এলাকায় তিনি খাতের ফকির হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তিনি আধ্যাত্মিক জ্ঞানসম্পন্ন তরিকাপন্থী লোক ছিলেন। সাধু তত্ত্বের উপর তিনি অনেক গজল রচনা করেন। মুক্তিযুদ্ধকালে অত্র এলাকায় মুক্তিবাহিনী সংগঠিত করে নিজেই ট্রেনিং দিতেন। তিনি ১৯৯৯ সালে পরলোকগমন করেন।

আক্কাছ আলী বয়াতী

আক্কাছ আলী বয়াতীর জন্ম রাজবাড়ির ধুঞ্চি গ্রামে। মুর্শিদী মারফতী গানে ইতিমধ্যে সুনাম অর্জন করেছেন। আক্কাছ আলী বয়াতী তাৎক্ষণিক গান রচনা করে নিজ গলায় গেয়ে থাকেন।

 

 

অসীম বাউল

রাজবাড়ি জেলা কালুখালী সন্নিকটে বেশ কিছু বাউল পরিবার রয়েছে। এদের মধ্যে অসীম বাউল সঙ্গীত রচনা ও সঙ্গীত পরিবেশনে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সুনাম অর্জন করেছেন। তিনি সরকার থেকে সোনার মেডেল প্রাপ্ত।

 

 

Additional information