স্মরণীয় যাঁরা-২ - পৃষ্ঠা নং-৮

মানবকল্যাণে তার মুক্ত হস্ত প্রসারিত হয়েছে শিক্ষাবিস্তারে দান-অনুদানের কর্ম পরিধিতে। তিনি প্রতিষ্ঠা করেছেন মাদ্রাসা, কলেজ। তাঁর অনুদানে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ নানা একাডেমী, নানা সমিতির ভবন। ড. কাজী মোতাহার হোসেন কলেজ; হাবাসপুর, পাংশা, রাজবাড়ি, আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমদ আদর্শ একাডেমী, আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমদ আদর্শ বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়; পাংশা, আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমদ জনক্যাণ ফাউন্ডেশন; ঢাকা আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমদ প্রশাসনিক ভবন; কালুখালি ডিগ্রি কলেজ, সাব্বির আহমদ অডিটরিয়াম; তারাপুর দাখিল মাদ্রাসা; পাংশা, মজিরুন্নেসা একাডেমী ভবন, আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমদ আদর্শ একাডেমী, মুন্সি দিয়ানত আলী প্রশাসনিক ভবন এর প্রতিষ্ঠাতা। জ্ঞানের বিকাশ ও অনুশীলনে তাঁর অনুদানে প্রতিবছর পাংশায় অনুষ্ঠিত হয় ‘আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমদ কুইজ প্রতিযোগিতা।’ তিনি ফরিদপুর মুসলিম মিশনের লিয়াজো কমিটি ঢাকা এর সদস্য এবং সভাপতি আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমদ জনকল্যান ফাউন্ডেশন; ঢাকা, জয়কৃষ্ণপুর জামে মসজিদ ও ইমাম কমিটি; ঢাকা। তিনি জয়কৃষ্ণপুর চাষী ক্লাব, রাজবাড়ি ইমাম কমিটি এবং অবসারপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি রাজবাড়ি শাখার প্রধান পৃষ্ঠপোষক। পৃষ্ঠপোষক মুছিদাহ বনগ্রাম আলিম মাদ্রাসা, তারাপুর জামে মসজিদ, গঙ্গানন্দদিয়া জামে মসজিদ, হাবাসপুর মিয়াবাড়ি জামে সমজিদ, আজিজপুর কওমী মাদ্রাসা পাংশা, হাবাসপুর বাজার জামে মসজিদ; পাংশা।

মেধা, ব্যক্তিত্ব, দান-অনুদানে তিনি সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার্ড গ্রাজুয়েট সোসাইটি, গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদ ও ঈদগাহ কমিটি; ঢাকা, রাজবাড়ি জেলা সমিতি; ঢাকা, পাংশা উপজেলা সমিতি; ঢাকা, লায়ন্স ফাউন্ডেশন; আগারগাঁও ঢাকা, গুলশান সোসাইটি ঢাকা এর জীবন সদস্য। সদস্য বাংলা একাডেমী; ঢাকা, বাংলাদেশ চীন মৈত্রী সমিতি; ঢাকা, জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উল মাদানিয়া; যাত্রাবাড়ি, ঢাকা, ড. কাজী মোতাহার হোসেন ফাউন্ডেশন; ঢাকা, টিকাটুলি জামে মসজিদ। তিনি আইডিয়াল গার্লস কলেজ, পাংশা, অধ্যাপিকা জাহানারা বেগম কলেজ, মীর মশাররফ হোসেন কলেজ, কালুখালি আয়না আদর্শ একাডেমী বায়তুল্যা কিন্ডার গার্টেন অংকুর স্কুল এন্ড কলেজকে বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি ও আসবাবপত্র অনুদানে শিক্ষাবিস্তারে বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন। সমাজসেবায় তিনি তাঁর কর্মপ্রবাহ নিয়মিত প্রশস্ত করে চলেছেন। ২১/০৯/২০১০ তারিখে অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি; রাজবাড়ি শাখার অফিস নির্মাণ কাজ উদ্ধোধন করেন। আড়ম্বরপূর্ণ উক্ত অনুষ্ঠানে তিনি সমিতির সভাপতি প্রফেসর মোহাম্মদ আলী খান সাহেবের হাতে ৪০.০০০.০০ টাকার একটি চেক প্রদান করেন। উল্লেখ্য ১১/১০/২০১০ তারিখে এলজিইডি মিলনায়তনে সম্মিলিত উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে উন্নয়ন শীর্ষক আলোচনা সভায় উক্ত সমিতির নির্মাণাধীন অসমাপ্ত ছাদের সমাপ্তি করনে আরও ৬০,০০০.০০ টাকার চেক অবসর সমিতির হাতে তুলে দেন। পৌর মেয়র কর্তৃক বরাদ্দকৃত উক্ত স্থানে তিনি অফিস সজ্জিতকরণে সহায়তা প্রদানে মোত ব্যক্ত করেন। তাঁর এ অনুদানে প্রফেসর কেরামত আলী প্রদত্ত ৫০ বস্তা সিমেন্টসহ অন্য সকলের সহায়তায় দীর্ঘ ২২ বছর পর জাতীয়ভিত্তিক এ সমিতির রাজবাড়ি শাখা স্থায়ী আশ্রয়ের ছাদের সন্ধান পেয়েছে। সমিতির হাজার সদস্য তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এই মহৎ ব্যক্তি যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, চীন, জাপানসহ প্রায় ১৫টি দেশ ভ্রমণ করেছেন। তিনি চারবার পবিত্র হজ্বব্রত পালন করেন। দুই পুত্র, এক কন্যা, নাতি, ভাইবোনসহ বধিষ্ণু পরিবারের আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমদ দেশ ও জাতির সেবায় অনন্য অবদান রেখে চলেছেন। তিনি ‘রাজবাড়ি সম্মিলিত উন্নয়ন সংস্থা’র সভাপতি। তার প্রথম পুত্র সাব্বির আহমদ বিএ অনার্স যুক্তরাষ্ট্র, এমবিএ, একজন সফল ব্যবসায়ী ও সমাজহিতৈষী। দ্বিতীয় পুত্র সাবিত আহমদ বিএসসি যুক্তরাষ্ট্র, বিবিএ। মেয়ে ডা. সাদিয়া আফরিন এমবিবিএস।

আকাশকে ছোঁব বলে

যতই প্রশস্ত করি হাত

Additional information